মনে রাখুন ১০৫

আইটি লাইফ ডেস্ক: সরকারি–বেসরকারি উদ্যোগে গড়ে ওঠা বিভিন্ন কল সেন্টারের সেবা পেতে গ্রাহকদের এখন অনেক নম্বর মনে রাখতে হয়। তবে এখন থেকে ১০৫ শর্টকোড নম্বরে ফোন করলে সব কল সেন্টারের তথ্য পাওয়া যাবে।  সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগকে এই শর্টকোড ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।Call-Center_itlife.com.bd

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, আইসিটি বিভাগ এ ধরনের সেবার জন্য ২০২১ ও ২০৪১ শর্টকোডের জন্য আবেদন করেছিল। ২০৪১ শর্টকোডটি দেওয়া হলেও ২০২১ নম্বরের পরিবর্তে প্রথমে ১৬৬৬৬ শর্টকোডটি বরাদ্দ দেয় বিটিআরসি। গত জুনে ১৬৬৬৬ শর্টকোডটি পরিবর্তন করে সহজে মনে রাখা যায়, এমন একটি নম্বর দেওয়ার জন্য বিটিআরসিকে চিঠি লেখেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ। প্রতিমন্ত্রীর চিঠি পাওয়ার পর বিটিআরসির সর্বশেষ কমিশন বৈঠকে ১০৫ নম্বরটি বরাদ্দ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
আইসিটি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশে ইতিমধ্যেই সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে যেসব বিশেষজ্ঞ কল সেন্টার চালু করা হয়েছে, সেগুলো এই নম্বরের সঙ্গে যুক্ত থাকবে। এর ফলে ১০৫ নম্বরে ফোন করে সহায়তা চাইলেই ওই সব নম্বরে যুক্ত হতে পারবেন গ্রাহক। আইসিটি বিভাগের বিভিন্ন সেবাও এই শর্টকোড থেকে পাওয়া যাবে। বিশ্বের অন্য দেশের মতো ১০৫ শর্টকোডটি বাংলাদেশে তথ্য ও সেবা প্রাপ্তির ‘ওয়ান স্টপ উইন্ডো’ হিসেবে কাজ করবে।
জাতীয় নম্বর পরিকল্পনা অনুযায়ী, বর্তমানে দেশে জরুরি সেবার জন্য তিন সংখ্যার চারটি শর্টকোড রয়েছে। এর মধ্যে ১০০ শর্টকোডটি পুলিশ সেবা, ১০১ নম্বরটি র্যা ব সেবা, ১০২ ফায়ার সার্ভিস, ১০৩ অ্যাম্বুলেন্স সেবার জন্য আগেই বরাদ্দ করা হয়েছে। সম্প্রতি ১০৪ শর্টকোডটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন অ্যাকসেস টু ইনফরমেশনের (এটুআই) জাতীয় তথ্য বাতায়ন সেবার জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে। আর সর্বশেষ ১০৫ শর্টকোড পেতে যাচ্ছে আইসিটি বিভাগ।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Notify of
avatar
300

wpDiscuz