রিও অলিম্পিকের নতুন প্রযুক্তি

আইটি ডেস্ক: খেলাধুলায় প্রযুক্তি ব্যবহার বর্তমান সময়ে বেশ গুরুত্বপুর্ন হয়ে উঠেছে। প্রযুক্তি ব্যবহারে খেলায় স্বচ্ছতা আসে এবং নানা সুবিধাও পাওয়া যায়।। এবারের রিও অলিম্পিক ২০১৬ তে বেশ কয়েকটি নতুন প্রযুক্তি যুক্ত করা হয়েছে। olympic tech_itlife.com.bd

লেনদেনের জন্য এনএফসি

ভিসা এবং ব্রাজিলিয়ান ব্যাংক ব্রাডেস্কো পরিধেয় ব্রেসলেটে নিয়ার ফিল্ড কমিউনিকেশন (এনএফসি) প্রযুক্তিতে অলিম্পিক গেমসে লেনদেন সুবিধা দিচ্ছে। এই গেমে অংশ নেয়া  ৩০০০ অ্যাথলেট, আর্টিস্ট এবং জার্নালিস্ট পানিরোধি রাবারের ব্রেসলেটের মাধ্যমে পন্য এবং সেবা নিতে পারছে। আর এতে অলিম্পিক ভেন্যুতে ৪ হাজার পেমেন্ট টার্মিনাল রয়েছে।

ফটোফিনিশ টেকনোলজি

সবচেয়ে বড় উদ্ভাবন হল ওমেগার তৈরি ফটোফিনিশ প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তিতে একজন অ্যাথলেট ফিনিশ লাইন পার হওয়ার খুব দ্রুত তা ক্যামেরায় ক্যাপচার করে নেয়। উন্নত কোয়ালিটির ইমেজ এবং প্রায় ভার্টিক্যাল লাইনে পার সেকেন্ডে ১০ হাজার ডিজিটাল ফটো ক্যাপচার করতে সক্ষম।

সিকিউরিটি বেলুনস

হাই রেজ্যুলিউশনের ক্যামেরার চারটি বেলুন রয়েছে এবারের রিও গেমসে। ডিভাইসটি আঞ্চলিক কমান্ড ও কন্ট্রোল সেন্টারে রিয়েল টাইমে ইমেজ পাঠাতে সক্ষম। অলিম্পিক গেমে এই প্রথমবারের মতো এ ধরনের বড় মাপের পর্যবেক্ষণ ডিভাইস ব্যবহার করা হয়েছে।

কালার ইমেজ স্কোরবোর্ড

দর্শকদের আরও ভালো অভিজ্ঞতা দেয়ার জন্য এবার স্কোরবোর্ডে কালার ইমেজ ব্যবহার করা হয়েছে। নতুন প্রযুক্তিতে আর্চারি(ধনুর্বিদ্যা) আরও সঠিক হবে। আর দর্শকরা তীর টার্গেটে গেলে তা এক সেকেন্ডেই স্ক্রিনে দেখবে।

ক্লাউড হোস্টেড পোর্টাল

এই প্রথমবারের মতো স্বেচ্ছাসেবক কার্যক্রম এবং ব্যবস্থাপনা ক্লাউড ভিত্তিক করা হয়েছে।

সুত্রঃ জেডডিনেট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Notify of
avatar
300

wpDiscuz