শব্দসীমা তুলে নিচ্ছে টুইটার।

আইটি লাইফ ডেস্কঃ প্রতি টুইটে ১৪০ শব্দসংখ্যার সীমাবদ্ধতা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জনপ্রিয় মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার। গ্রাহক সংখ্যা এবং ইন্টার অ্যাক্টিভিটি বাড়াতে এবার মোবাইল ফোন টেক্সটিংয়ে এই সুবিধা চালু করা হবে বলে ঠিক হয়েছে। তবে এ ব্যাপারে এখনই কোনো ঘোষণা দেয়নি সংস্থাটি।itlife_twiter

২০০৬ সালে চালু হওয়ার পর টুইটারে সর্বোচ্চ ১৪০ শব্দে পোস্ট করা যায়। তবে শুরু থেকেই টুইটার পোস্টে শব্দসংখ্যার সীমাবদ্ধতা তুলে দেওয়ার পক্ষে ছিলেন গ্রাহকরা। তাদের যুক্তি, ছবি ও ভিডিও লিঙ্ক শেয়ারের জন্য পরিমিত শব্দসংখ্যার নিয়ম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। তারা জানান, এর ফলে সোশ্যাল মিডিয়ার জগতে ক্রমে জনপ্রিয়তা হারাতে পারে। আগামী ২১ মার্চ ১০ বছর পূর্ণ হবে টুইটারের।

১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে জ্যাক ডরসি জানান, টুইটারের নীতিমালার বিরোধী নয় এমন কোনো কনটেন্ট সেন্সর করার বা মুছে দেওয়ার পরিকল্পনা নেই। তিনি বলেন, ‘টুইটার সবসময়ই আমাদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। মানুষ যাকে খুশি তাকে ফলো করতে পারে এবং আমাদের দায়িত্ব হলো ব্যবহারকারীদের গুরুত্ব বুঝে কাজ করা।’ ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আরও বেশি ব্যবহারকারীর কাছে পৌঁছাতে চায় টুইটার। আর এজন্য নতুন নতুন সুবিধা যোগ করছে তারা।

গত এপ্রিল মাসে ত্রৈমাসিক প্রতিবেদনে নিজের বিশেষ কোনো পরিবর্তন আনেনি টুইটার। পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, দ্রুত বদলে চলা সামাজিক যোগাযোগ সেবার জগতে টুইটারের মন্থর গতি আখেরে ক্ষতিসাধন করছে। সাম্প্রতিক হিসাব বলছে, টুইটারের মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৩১ কোটি যা গত এক বছরের চেয়ে মাত্র ৩ ভাগ বেশি।

সামাজিক যোগাযোগে টুইটারের গুরুত্ব ধরে রাখতে পরিবর্তন জরুরি বলে মনে করেন সংস্থার সদ্য নিযুক্ত বোর্ড সদস্য ডেবরা লি। এক বিবৃতিতে লি জানিয়েছেন, মিডিয়ার প্রেক্ষিতে বিশ্বে টুইটারের রূপান্তরিত পরিষেবা অতীতে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এখনও তার প্রাসঙ্গিকতা অপরিসীম।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Notify of
avatar
300

wpDiscuz